বিমান বন্দরে হেনস্থা মঈন আলী

Apr 10, 2016 02:45 pm

 

 

ইসলামোফোবিয়ার শিকার হলেন এবার ইংল্যান্ড দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য ক্রিকেটার । প্রায় দুই বছরের বেশি সময় ধরে ইংল্যান্ডের ক্রিকেটেই খেলে আসছেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান মঈন আলী। বর্তমান সময়ে দারুণ ফর্মেও আছেন তিনি। স্বাভাবিক কারণে তাঁর ব্যাপক পরিচিতি থাকার কথা। অথচ তাঁকেই নাকি বিমানবন্দরের নিরাপত্তাকর্মীরা চিনতে পারেননি।


শনিবার মঈনকে যুক্তরাজ্যে তাঁর নিজ শহর বার্মিংহাম বিমানবন্দরে ৪০ মিনিট আটকে রাখা হয়। নিরাপত্তার অজুহাতে বিমানবন্দর কর্মীরা তাঁকে রীতিমতো হেনস্তা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।


কেউ কেউ ধারণা করছেন, মুখে দাড়ি এবং তাঁর ধর্ম ইসলাম হওয়ার কারণেই হয়তো তিনি এমন হেনস্তার শিকার হন।
বার্মিংহাম থেকে মঈন আলী ওস্টারশায়ারে যাচ্ছিলেন কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে। এই ঘটনায় খুবই হতাশ মঈন আলী টুইটারে লিখেছেন, ‘দলের সঙ্গে জার্সি পরে ভ্রমণে কখনোই এমন অভিজ্ঞতার শিকার হতে হয়নি আমাকে। কিন্তু একা সফর করতে গিয়ে ৪০ মিনিট আটকে থাকতে হলো আমাকে! বার্মিংহাম বিমানবন্দর!! তখন খুবই কঠিন সময় পার করতে হয়েছে আমাকে।’


সমব্যথী হয়ে টুইটারের এর জবাবে সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার ওয়াইজ শাহ লিখেছেন, ‘আমার মনে হয় এর পেছনে কারণ হতে পারে তোমার দাড়ি।’


ইংল্যান্ডে এভাবে অনেক যাত্রীকে হয়রানি করা হচ্ছে। এবার নিজ দলের ক্রিকেটারও বাদ গেলো না। এর মাধ্যমে পশ্চিমা বিশ্বে ইসলাম আতঙ্কের একটি চিত্র প্রকাশ পেলো।