পায়রা নিয়ে ব্যস্ত ভারতীয় সেনাবাহিনী

Oct 03, 2016 08:45 am

 

পাকিস্তানি পায়রা নিয়ে এখন ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে ভারতীয় বাহিনীকে। সীমান্ত পার হয়ে পাকিস্তান থেকে আসা একটি পায়রাকে আটক করেছে ভারতীয় বাহিনী। পায়রাটির গলায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে উর্দুতে কিছু লেখা ছিল। সেটিকে দেখতে পান বামিয়ালের সিমবল পোস্টের সেনা জওয়ানরা। এই ঘটনার আগে পাঞ্জাব সীমান্তের বালিয়ালে একই জায়গা থেকে দুটি বেলুন উদ্ধার করেন ভারতীয় জওয়ানরা। এরপরই পায়রাকে আটক করা হয়েছে। উর্দুতে মোদীকে লেখা চিঠি নিয়ে পাকিস্তান থেকে আসা পায়রা আটক পুলিশ জানিয়েছে, উর্দুতে ওই চিঠিতে লেখা রয়েছে হুমকির বার্তা।


চিঠির বয়ান হল, "মোদীজি, ১৯৭১ সালের ভারত-পাক যুদ্ধের সময়ে আমরা যেমন ছিলাম, এখনও তেমন রয়েছি ভাবলে ভুল করবেন। এখন দেশের প্রতিটি সন্তান ভারতের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রস্তুত।" ছাই রঙের এই পায়রাটিকে বিএসএফের পোস্টের কাছেই পাওয়া যায় বলে পাঠানকোটের নারোট জয়মাল সিং পুলিশ স্টেশনের কর্মকর্তা রমেশ কুমার জানিয়েছেন।

তিনি আরও জানান, পায়রাটিকে পাকড়াও করার সময়েই গলায় এই চিঠিটি পাওয়া গিয়েছে। গোটা ঘটনাটি আমরা তদন্ত করে দেখছি। এর আগে রবিবার দুটি বেলুন উদ্ধার হয়। সেগুলিতেও উর্দুতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে উদ্দেশ্য করে স্পষ্ট হুমকি ভরা বার্তা ছিল। সেগুলি উদ্ধার হয় পাঞ্জাবেরই গুরুদাসপুরে দিনানগরের ঘেসাল গ্রামে। এই দিনানগরেই গতবছর সেনার উপরে জঙ্গি হানা চালিয়েছিল জঙ্গিরা।


এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর একটি সাদা পায়রা সীমান্ত পেরিয়ে আসে। তার গলাতেও উর্দুতে লেখা বার্তা ছিল। সেটিকে পাঞ্জাবের হোশিয়ারপুর জেলা থেকে পাকড়াও করা হয়। এবার তো আর একটি পায়রাকে আটকই করল ভারতীয় সেনাবাহিনী।

পায়রা নিয়ে এবারই যে প্রথম ভারতীয় বাহিনীকে ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে তা নয় এর আগেও পাকিস্তান থেকে আসা পায়রা নিয়ে সেনাবাহিনীকে ব্যস্ত খাকতে হয়েছে। পায়রাকে আটক করা হয়েছে। এসব নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের মিডিয়াতে নানা হাস্যরসাত্নক আলোচনা হয়েছে। যেমন পায়রার শাস্তি কী হবে কারাদন্ড না মৃত্যুদন্ড।