উড়ন্ত বিমানে হঠাত্ বেরিয়ে এল সাপ, হুলুস্থুল কাণ্ড

Nov 08, 2016 03:23 pm

 

ঠিক যেন ‘স্নেকস অন আ প্লেন’ হলিউডি থ্রিলারের দৃশ্য! বিমানের ভিতরের গা বেয়ে দুলছে একটা সবুজ রঙের সাপ। কেবিনভর্তি যাত্রীরা তখন শ্বাসরুদ্ধ! আতঙ্কে সিঁটিয়ে রয়েছেন নিজেদের সিটে। না! ফিল্মের গল্প নয়। বাস্তবেই এমনটা ঘটল মেক্সিকোর এক বিমানে। হলিউডি পর্দা ছেড়ে রবিবার তা অবিকল দেখলেন ওই বিমানের যাত্রীরা।

উড়ান তখন মাঝ আকাশে। উত্তর মেক্সিকোর তোরেন থেকে গন্তব্য মেক্সিকো শহরে। যাত্রীরা নিজেদের সিটে যে যাঁর মতো বসে। নিজের সিটে বসে ছিলেন ইন্দালেসিও মেদিনাও। মধ্যবয়সী ওই ভদ্রলোকের হাতে খোলা ম্যাগাজিনের পাতা। তাতেই গভীর মনোযোগ ছিল তাঁর। হঠাৎই হুঁশ ফিরল পাশে বসা সহযাত্রীর ভয়মেশানো চিৎকারে। “ওহ মাই গড!” চমকে তাকিয়ে দেখেন, কেবিনের সিলিংয়ের দিকে স্থিরদৃষ্টি তাঁর। লাগেজ কমপার্টমেন্টের থেকে মুখ বার করছে একটা সাপ। প্রায় ফুট তিনেক হবে। আতঙ্কে স্তব্ধ হয়ে গেলেন ইন্দালেসিও। সবুজ রঙের সাপটা তখন ঝুলে পড়ল নীচের দিকে। তড়াক করে সিট বেল্ট খুলে লাফিয়ে উঠলেন ইন্দালেসিও। আতঙ্কে উঠে পড়েছেন পাশের যাত্রীও। ভয়ে ছুটতে শুরু করেছেন কেবিনের সামনের দিকে। তবে এর মধ্যেই ওই ঘটনার ছবি নিজের মোবাইল ক্যামেরাবন্দি করতে ছাড়েননি। যাত্রীদের চিৎকারে তত ক্ষণে এগিয়ে এসেছেন বিমানসেবিকারাও। মেঝেতে পড়ার আগেই তড়িঘড়ি ব্ল্যাঙ্কেট দিয়ে সাপটিকে চাপা দিয়ে দেন তাঁরা।

তবে তাতেও আতঙ্ক কাটেনি যাত্রীদের। সে ঘটনার কথা জানাতে গিয়ে ইন্দালেসিও বলেন, “ভয়ানক একটা অবস্থা ছিল তখন। তবে অত আতঙ্কেও আমরা দিশেহারা হয়ে যাইনি।” কয়েক জন অতি উৎসাহী আবার সাপটিকে দেখতে এগিয়েও যান। শেষমেশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বিমানটিকে তড়িঘড়ি মেক্সিকো শহরে অবতরণ করানো হয়। যাত্রীদের এক এক করে বের করে আনা হয়।
গোটা ঘটনায় স্বাভাবিক ভাবেই যথেষ্ট বিব্রত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। সাপটি কী ভাবে বিমানে এল তা তদন্ত করে দেখা হবে, বিবৃতিতে জানিয়েছেন তাঁরা। এবং এমন ঘটনা যাতে না ঘটে সে দিকেও নজর রাখবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন। আর এর মধ্যে গোটা ছবিটাই টুইটারে পোস্ট করেছেন ইন্দালেসি।

আনন্দবাজার পত্রিকা