যে কারনে অ্যাপেন্ডিসাইটিসের ব্যাথা হয়

Nov 20, 2016 06:35 am

 

অ্যাপেন্ডিক্স নামক উপাঙ্গে, ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন বা কোন রকমের বাঁধা অ্যাপেন্ডিসাইটিসের সৃষ্টি করে। এর তীব্রতা ও বৃদ্ধির হারের ওপর ভিত্তি করে, অ্যাপেন্ডিসাইটিস জটিল অবস্থার বা দীর্ঘস্থায়ী অবস্থার হতে পারে। অ্যাকিউট অ্যাপেন্ডিসাইটিসের যেখানে জটিলতার ক্রমবৃদ্ধি ও দ্রুত বেড়ে ওঠার দিকে প্রবণতা থাকে, সেখানে ক্রনিক অ্যাপেন্ডিসাইটিস ধীর লয়ে বাড়তে থাকে ও প্রকৃতিগতভাবে কম গুরুতর হয়।


ক্যালকুলাস ও মল দ্বারা বাধাপ্রাপ্ত হয়ে অ্যাপেন্ডিক্স ফুলে ওঠে। সময়ে সময়ে লসিকা গ্রন্থির ফুলে ওঠা অ্যাপেন্ডিক্সের ত্রুটিপূর্ণ ক্রিয়াকলাপের সাথে বাড়তি যোগ হয়। লসিকাগ্রন্থিগুলি অ্যাপেন্ডিক্সের দেওয়ালে চাপ দিতে থাকে ফলে এগুলি অ্যাপেন্ডিক্সের মধ্যে বাধার সৃষ্টি করে। ব্যাকটিরিয়াল ইনফেকশনের ফলে লসিকা গ্রন্থিগুলি ফুলে উঠলে এটি হয়ে থাকে, অ্যাপেন্ডিসাইটিসের ক্ষেত্রে এটি অস্বাভাবিক নয়। এই বাঁধা রক্ত সঞ্চালনকে বিঘ্নিত করে এবং অবশেষে যা অ্যাপেন্ডিক্সের জন্য মারাত্মক হয়ে ওঠে।

ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন ও অ্যাপেন্ডিক্স ফুলে ওঠার ফলে, গ্যাংগ্রিন, সেপসিসের সাথে সাথে অ্যাপেন্ডিক্সে ছিদ্র পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে। একবার ক্ষতিগ্রস্ত অ্যাপেন্ডিক্স ধরা পড়লে, অস্ত্রপ্রচারের মাধ্যমে দেহ থেকে অ্যাপেন্ডিক্স অপসারণ করে ফেলাই সবথেকে ভাল সাম্ভাব্য চিকিৎসা।

মানব দেহে অ্যাপেন্ডিক্স কোন মৌলিক ভূমিকা পালন করে না এবং এটির অপসারনের পরেও শরীরের অন্যান্য অপরিহার্য অপারেশন অবিঘ্নিত থেকে যায়। অ্যাপেন্ডেকটমি প্রক্রিয়াকে অ্যাপেন্ডিসাইটিসে অস্ত্রোপচারের পদ্ধতি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। সাধারণ ও সহজ ধরণের অ্যাপেন্ডিসাইটিসের ক্ষেত্রে, অ্যাপেন্ডেকটমি প্রক্রিয়াটি জটিল নয়।

অস্ত্রপ্রচারের পর দুই সপ্তাহ সময়ের মধ্যেই সম্পূর্ন আরোগ্য সম্ভব। সেরে ওঠার এই সম্ভবনা কমে যায় যখন অ্যাপেন্ডিসাইটিসের চিকিৎসা সঠিক সময়ে শুরু হয় না। অ্যাপেন্ডিসাইটিস বেড়ে ওঠার একটি মূল কারণ ভুল খাদ্যাভ্যাস। ফাইবারে পূর্ণ খাবার বেঁছে নেওয়া ও সামগ্রিকভাবে স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার মান বজায় রাখা, কার্যত এই অসুস্থতাকে এড়িয়ে দিতে সক্ষম। যে কোন বয়সের যে কোন কোন ব্যক্তিই অ্যাপেন্ডিসাইটিস দ্বারা প্রভাবিত হতে পারে।